শিরোনাম:
পাইকগাছা, শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ন ১৪২৮
SW News24
সোমবার ● ২২ নভেম্বর ২০২১
প্রথম পাতা » সাহিত্য » মোংলায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড.হিমেল বরকত’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
প্রথম পাতা » সাহিত্য » মোংলায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড.হিমেল বরকত’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
২১ বার পঠিত
সোমবার ● ২২ নভেম্বর ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

মোংলায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড.হিমেল বরকত’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

---


মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা

মোংলায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সাবেক অধ্যাপক,কবি,ও গবেষক ড. হিমেল বরকতের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে।


ড.হিমেল বরকত’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সোমবার (২২ নভেম্বর) রুদ্র স্মৃতি সংসদ, সস্মিলিত সাস্কৃতিক জোট, সমুদ্র সাহিত্য পরিষদ , বন্ধু পর্ষদ মোংলা, মোংলা সাহিত্য পরিষদ, আঁলোর পথে বন্ধু সমাজসহ বিভিন্ন  সামাজিক এবং পেশাজীবি সংগঠনের যৌথ আয়োজনে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করেছে।


দিনটির প্রথম প্রহরে মোংলা উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নে অবস্থিত কবির সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শেষে দোয়া বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।



এসময় কবির গ্রামের বাড়ি মোংলার মিঠাখালীতে কবির মাজার জিয়ারত ও শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনে উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক ও রুদ্র স্মৃতি সংসদ এর সভাপতি সুমেল সারাফাত, শিরিয়া বেগম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রবীণ শিক্ষক ওবায়দুল ইসলাম, মিঠাখালি ইউপি সদস্য উকিল উদ্দিন ইজারাদার, কবি হিমেল’র বাল্য বন্ধু জানে আলম বাবু, মোংলা সম্মিলিত সাংস্কৃতি জোটের সভপতি নুর আলম শেখ, সাধারণ সম্পাদক মামুন, রুদ্র স্মৃতি সংসদের ক্রীড়া সম্পাদক লিটন শেখ, প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক বায়জিদ হোসেন, অন্তর বাজাও শিল্পী গোষ্ঠী’র প্রধান শিল্পী গোলাম মহম্মদ প্রমুখ।


ড. হিমেল বরকত ১৯৭৭ সালের ২৭ জুলাই বাগেরহাট জেলার মোংলার মিঠেখালী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এবং ২০২০ সালের ২২ নভেম্বর ঢাকায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।


ডা. শেখ ওয়ালীউল্লাহ ও শিরিয়া বেগমের ছোট সন্তান হিমেল বরকত ও বড় সন্তান প্রয়াত কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ। হিমেল বরকত ১৯৯৪ সালে মোংলার সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, ১৯৯৬ সালে ঢাকার নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি এবং পরবর্তী সময়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় অনার্স-মাস্টার্স ও ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন।


ঢাকা সিটি কলেজে শিক্ষকতার মধ্য দিয়ে ২০০৫ সালে হিমেল বরকতের কর্মজীবন শুরু হয়। ২০০৬ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন এবং ২০১৮ সালের ৫ জুন অধ্যাপক হন। মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত এখানেই তিনি কর্মরত ছিলেন। হিমেল বরকতের প্রকাশিত উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ হলো চোখে চৌদিকে (২০০১), দশ মাতৃক দৃশ্যাবলি (২০১৪), গবেষণাধর্মী গ্রন্থ প্রান্তস্বর ব্রাত্যভাবনা (২০১৭), সাহিত্য সমালোচক বুদ্ধদেব বসু গবেষণা গ্রন্থ (২০১৩), ছড়ায় ছড়ায় প্রকৃতির বিস্ময়, ছোট গল্প আয়না এবং পেনসিল ও রাবারের গল্প ইত্যাদি।

হিমেল বরকত সম্পাদিত গ্রন্থগুলো হলো রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ রচনাবলী (২০০৫), কবি ত্রিদিব দস্তিদারের কবিতা সমগ্র (২০০৫), চন্দ্রাবতীর রামায়ণ ও প্রাসঙ্গিক পাঠ (২০১২), রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহর শ্রেষ্ঠ কবিতা (২০১২), বাংলাদেশের আদিবাসী কাব্যসংগ্রহ (২০১৩), রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ স্মারকগ্রন্থ (২০১৫) ও রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহর প্রেমের কবিতা নিয়ে অনুকাব্য।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)