শিরোনাম:
পাইকগাছা, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮
SW News24
শুক্রবার ● ৩১ ডিসেম্বর ২০২১
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » শপথ নিলেন প্রধান বিচারপতি
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » শপথ নিলেন প্রধান বিচারপতি
৩২ বার পঠিত
শুক্রবার ● ৩১ ডিসেম্বর ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

শপথ নিলেন প্রধান বিচারপতি

এস ডব্লিউ; ---দেশের ২৩তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নিলেন আপিল বিভাগের বিচারক বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

বঙ্গভবনের দরবার হলে শুক্রবার বিকেলে তাকে শপথ পাঠ করান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।শপথ শেষে রীতি মেনে শপথ বইয়ে সই করেন প্রধান বিচারপতি। এরপর একই বইয়ে সই করেন রাষ্ট্রপ্রধান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও ছিলেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগের বিষয়টি অনুমোদন দেন রাষ্ট্রপতি।

দেশের ২৩তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে কে নিয়োগ পাচ্ছেন তা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই আলোচনা চলছিল।

হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী উচ্চ আদালতে বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার আগে একজন সফল আইনজীবী হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। আইনজীবী হিসেবে তিনি খুলনা সিটি করপোরেশন, কুষ্টিয়া পৌরসভা, জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন সংস্থা এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান আইন উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেন। এ ছাড়া তিনি বাংলাদেশের অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ৩০ এপ্রিল ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন।

আবদুর গফুর মোল্লা ও নূরজাহান বেগম দম্পতির সন্তান হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর জন্ম ১৯৫৬ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার রমানাথপুর গ্রামে।

তিনি ১৯৭২ সালে খোকসা জানিপুর পাইলট হাইস্কুল থেকে মাধ্যমিক পাস করেন। উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন ১৯৭৪ সালে সাতক্ষীরার সরকারি পিসি কলেজ থেকে। এরপর বিএ পাস করেন সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ থেকে। তিনি এমএ পাস করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে। এলএলবি পাস করেন ধানমণ্ডি ল’ কলেজ থেকে।

আইনজীবী হিসেবে হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের তালিকাভুক্ত হন ১৯৮১ সালে। জেলা আদালতে প্র্যাকটিস শুরু করেন ১৯৮১ সালের ২১ আগস্ট। ১৯৮৩ সালের ৪ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের সনদ লাভ করেন। আপিল বিভাগের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন ১৯৯৯ সালের ২৭ মে।

হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ২০০১ সালে হাইকোর্টে অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান। ২০০৯ সালের ২৫ মার্চ হাইকোর্ট বিভাগের স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে এবং ২০১৩ সালের ৩১ মার্চ আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান তিনি। বিচারপতি হিসেবে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান ও ভারতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নেন তিনি। এছাড়াও তিনি সৌদি আরব সফর করেছেন।

বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর বড় ভাই বিচারপতি আবু বকর সিদ্দিকী সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি থেকে অবসরে গেছেন। বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম দুই ভাই সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগে বিচারক পদে আসীন হওয়ার নজির স্থাপন করেছেন।



প্রধান সংবাদ এর আরও খবর

স্বাধীনতাকে সর্বশক্তি দিয়ে রক্ষা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী স্বাধীনতাকে সর্বশক্তি দিয়ে রক্ষা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
সামরিক-অসামরিক প্রশাসনকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে: সেনাপ্রধান সামরিক-অসামরিক প্রশাসনকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে: সেনাপ্রধান
কারও কাছে হাত পেতে নয়, নিজের সম্পদে মর্যাদাশীল দেশ: প্রধানমন্ত্রী কারও কাছে হাত পেতে নয়, নিজের সম্পদে মর্যাদাশীল দেশ: প্রধানমন্ত্রী
মনে রাখবেন, জনগণের টাকায় বেতন হয়: ডিসিদের রাষ্ট্রপতি মনে রাখবেন, জনগণের টাকায় বেতন হয়: ডিসিদের রাষ্ট্রপতি
ইসি গঠনের জন্য আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন ইসি গঠনের জন্য আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতির সংলাপে যাচ্ছে আ’লীগ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতির সংলাপে যাচ্ছে আ’লীগ
রাধা শ্রীনিবাস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কপিলমুনিতে শীত বস্ত্র বিতরণ রাধা শ্রীনিবাস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কপিলমুনিতে শীত বস্ত্র বিতরণ
পাইকগাছায় আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর পরিদর্শন ও শীতবস্ত্র বিতরণ করেন সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ পাইকগাছায় আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর পরিদর্শন ও শীতবস্ত্র বিতরণ করেন সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ
সেনাবাহিনী হবে জনগণের বাহিনী: সেনাপ্রধান শফিউদ্দিন আহমেদ সেনাবাহিনী হবে জনগণের বাহিনী: সেনাপ্রধান শফিউদ্দিন আহমেদ
স্থায়ী ঠিকানায় বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী স্থায়ী ঠিকানায় বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)