শিরোনাম:
পাইকগাছা, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮
SW News24
বৃহস্পতিবার ● ৬ জানুয়ারী ২০২২
প্রথম পাতা » রাজনীতি » ইউপি ভোটে সহিংসতা ঝরলো ১১ প্রাণ
প্রথম পাতা » রাজনীতি » ইউপি ভোটে সহিংসতা ঝরলো ১১ প্রাণ
৩২ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ৬ জানুয়ারী ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ইউপি ভোটে সহিংসতা ঝরলো ১১ প্রাণ

এস ডব্লিউ;---    ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগের চার ধাপের মতো পঞ্চম ধাপেও দেশের বিভিন্ন এলাকায় সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাত পর্যন্ত ছয় জেলায় সহিংসতায় এক নারীসহ ১১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে বগুরায় বিজিবি’র গুলিতে চার ও পৃথক ঘটনায় এক, চাঁদপুরে দুইজন এবং জামালপুর, মানিকগঞ্জ, চট্টগ্রাম ও গাইবান্ধা ভোটগ্রহণ চলাকালে একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।
বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ৭০৮টি ইউনিয়ন পরিষদে এই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। 
বগুড়া : জেলার গাবতলীর একটি কেন্দ্রে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর ফলাফল ঘোষণা নিয়ে দায়িত্বশীলরা গড়িমসি করায় বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা কেন্দ্র ভাঙচুর, বিজিবি, পুলিশ ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা চালিয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে ও অবস্থান নিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়।
বুধবার সন্ধ্যায় বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিজিবি সদস্যরা অন্তত ২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছেন। এ সময় এক নারীসহ চারজন নিহত ও অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতদের বগুড়া শজিমেকসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী গুলিতে চারজন নিহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহান জানান, আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা গুলিবর্ষণ করলেও কেউ নিহত হয়েছেন কি-না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তিনি বলেন, হামলায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আহমেদ, একজন পুলিশ ও একজন বিজিবি সদস্য আহত হয়েছেন।
গুলিতে নিহতরা হলেন-গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা গ্রামের খোকন মণ্ডলের স্ত্রী কুলসুম আকতার (৩৫), একই গ্রামের মৃত ছিফাতুল­াহর ছেলে আবদুর রশিদ (৬০), মকবুল হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩৫) ও মৃত ছহির উদ্দিন আকন্দের ছেলে খোরশেদ আলী (৭০)। আহতদের কয়েকজন হলেন-মালিয়ানডাঙ্গা গ্রামের সাবেক মেম্বর আবদুর রশিদ, মেহেদী ও রাসিব।
স্থানীয়রা জানান, বুধবার দিনভর ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যায় গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালিয়াহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গণনা চলছিল। ওই কেন্দ্র আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইউনুস আলী ফকিরের বাড়ির কাছে। ভোট গণনা হলেও প্রশাসনের কর্তারা সেখানে ফলাফল ঘোষণা দিতে অসম্মতি জানান। তারা ব্যালট বগুড়া সদরে আনার প্রস্তুতি নেন।
অভিযোগ উঠে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা তার আত্মীয় বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা মার্কার সাকিউল ইসলাম তিতু বা ঘোড়া মার্কার মাহবুবুর রহমানের পক্ষ নিচ্ছেন। এ সময় নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। তারা ফলাফল ঘোষণার দাবিতে সড়কে কাঠের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ করেন। শত শত নারী পুরুষ লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় অবস্থান নেন এবং মারমুখী হয়ে উঠেন।
তখন দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেন। এ সময় অন্তত চারজন নিহত ও ৫-৬ জন আহত হওয়ার খবর প্রচার হলে নৌকা মার্কার বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা কেন্দ্রে ব্যাপক ভাঙচুর চালান। তারা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের গাড়ি ভাঙচুর করেন।
এ প্রসঙ্গে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আহমেদ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।
গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহান জানিয়েছেন, আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছেন। তবে কেউ নিহত হয়েছেন কি-না তা নিশ্চিত হতে পারেননি। রাতে এ খবর পাঠানোর সময় এলাকার পরিস্থিতি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল।
এরআগে জেলার গাবতলী উপজেলার একটি কেন্দ্রে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে জাকির হোসেন নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রামেশ্বরপুর জাইগুনি গ্রামে দুপুরে এ সংঘর্ষ হয়। সে সময় আহত জাকিরকে বগুড়ার শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহত জাকিরের বাড়ি গাবতলীর রামেশ্বরপুর গ্রামে। তার বয়স আনুমানিক ৩৫ বছর।
গাইবান্ধা : জেলার সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ি ইউনিয়নের জুমারবাড়ি আদর্শ ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রের বাইরে দুই ইউপি সদস্যের সমর্থকদের সংঘর্ষে ধারলো অস্ত্রের আঘাতে আবু তাহের নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। বুধবার ভোট চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। আবু তাহের ওমর আলীর ছেলে। পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
চাঁদপুর : জেলায় ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় দুইজন নিহত হয়েছে। বুধবার দুপুরে কচুয়ার উপজেলার সাচার ইউনিয়নের নয়াকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে দুই সদস্য প্রার্থীর মধ্যে সংর্ঘষে একজন ছুরিকাহত হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহত শরীফ হোসেনকে (৩০) ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এছাড়াও জেলার হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের দুর্গমচরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংর্ঘষে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে একজন মারা যান। তবে নিহত ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়নি। জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ দুইটি মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।
জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৯ নম্বর উত্তর গোবিন্দপুর ইউনিয়নে উত্তর চাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে ঢুকে একদল যুবক চেয়ারম্যান প্রার্থীর ব্যালট পেপার তিন শতাধিক ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এছাড়া একই ইউনিয়নের ধানুয়া জনতা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের ভেতর ও বাইরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ককটেল বিস্ফোরণ, ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১০জন আহত হন। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কয়েক রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছোঁড়ে।
চট্টগ্রাম : জেলার ইউপি নির্বাচনে আনোয়ারায় দুই মেম্বর প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে অংকুর দত্ত (৩০) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। বুধবার দুপুর ১২টায় চাতরী ইউনিয়নের সিংহরা গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহত অংকুর দত্ত সিংহরা গ্রামের নেপাল দত্তের ছেলে। আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিদারুল ইসলাম শিকদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয়রা জানান, সিংহরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে প্রায় দুইশ’ গজ দূরে বর্তমান মেম্বার রঘুনাথ শিকদার ও অপর প্রার্থী নাজিম উদ্দিনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে অংকুর নামের এক যুবক আহত হয়। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
মানিকগঞ্জ : জেলার দৌলতপুর উপজেলার বাচামারা ইউনিয়নের বাচামারা ভোটকেন্দ্রে নির্বাচনী সহিংসতায় ছলেমন খাতুন (৫০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। বুধবার দুপুরে উপজেলার বাচামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ওই নারীর প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। নিহত ছলেমন খাতুন উপজেলার বাচামারা গ্রামের খোরশেদ আলমের স্ত্রী। তিনি দুপুরে ভোট দিতে বাচামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কেন্দ্রে যান। এ সময় ৫নং ওয়ার্ডের দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পাল্টা-পাল্টি ধাওয়া হয়। পরে এ ঘটনা দেখে ছলেমন খাতুন হার্ট এ্যাটাক করেন। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরুল হাসান বলেন, বাচামারা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে দুই সদস্য প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই নারী ভোট দিতে কেন্দ্রে আসেন। সংঘর্ষের কবলে পড়ে তিনি হার্ট এ্যাটাক করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নিজ বাড়িতে নিয়ে গেলে তিনি মারা যান।
জামালপুর : জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার মেরুরচর ইউনিয়নে নির্বাচনী সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে আল আমীন (২২) নামের এক যুবক মারা গেছেন। তার স্বজন সাকিব মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহত আল-আমিন মেরুর চরের বাঘাডুবা গ্রামের আচ্ছা মিয়ার ছেলে। তিনি আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোয়ার হোসেনের সমর্থক।
বুধবার দুপুরের দিকে মেরুরচর ইউনিয়নের মেরুরচর হাছেন আলী উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে নৌকা ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক আল আমীন গুলিবিদ্ধ হন। এ সময় আহত হন পুলিশসহ আরও ৯ জন। সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়া কর্মী-সমর্থকদের দেয়া আগুনে পুলিশের একটি পিকআপ ও তিনটি মোটরসাইকেল পুড়ে গেছে। এছাড়াও আনসারদের বহন করা একটি গাড়ি ভাঙচুর করে উত্তেজিত লোকজন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশি এ্যাকশনের সময় আহত হয়েছে চারজন সাধারণ লোক। এ সময় প্রতিদ্ব›দ্বী দুই প্রার্থীর কর্মীদের আঘাতে আহত হয়েছেন পাঁচ পুলিশ সদস্য। বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে পুলিশ। প্রার্থীর কর্মীদের ছোড়া পাল্টা গুলিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর এক কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় ভোটকেন্দ্রসহ আশপাশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে ভোটারসহ আহত সাধারণ মানুষ দৌড়ে পালিয়ে যায়।
আহতরা হলেন বকশীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ শফিকুল ইসলাম সম্রাট, ওসি (তদন্ত) আব্দুর রহিম, কনস্টেবল আব্দুল আলিম (৪০), মোঃ শাহজাহান (৫৫), আঃ মজিদ (৫৭) ও আনসার সদস্য আব্দুল আলিম (২৫)। আহত সাধারণ লোকদের নাম-ঠিকানা পাওয়া যায়নি।
ওসি মোঃ শফিকুল ইসলাম সম্রাট বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রথমে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এ সময় লাঠিসোটা ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়া লোকজনের আঘাতে ৫ পুলিশ ও এক আনসার সদস্য আহত হন। উত্তেজিত কর্মীরা গুলি ছুড়লে পুলিশও ছত্রভঙ্গ করতে ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। তবে আল আমীন পুলিশের গুলিতে মারা যাননি।



রাজনীতি এর আরও খবর

পাইকগাছা যুবদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা: তৃণমুলে ক্ষোভ ও পদত্যাগ পাইকগাছা যুবদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা: তৃণমুলে ক্ষোভ ও পদত্যাগ
সাগরদাঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটিতে রাজাকারের  সন্তানদের অন্তর্ভুক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন সাগরদাঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটিতে রাজাকারের সন্তানদের অন্তর্ভুক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন
পাইকগাছায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন পাইকগাছায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন
ভোটারদের ভালোবাসায় লোহাগড়ার দিঘলিয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেম্বার হলেন খোকন ভোটারদের ভালোবাসায় লোহাগড়ার দিঘলিয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় মেম্বার হলেন খোকন
কেশবপুরে ইউপি নির্বাচনে আ.লীগ ৪, স্বতন্ত্র   ৬ প্রার্থী বিজয়ী, ১টিতে ফলাফল স্থগিত কেশবপুরে ইউপি নির্বাচনে আ.লীগ ৪, স্বতন্ত্র ৬ প্রার্থী বিজয়ী, ১টিতে ফলাফল স্থগিত
আশাশুনিতে ১১ ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচন আশাশুনিতে ১১ ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচন
পাইকগাছা উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের উদ্যোগে ৭৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত পাইকগাছা উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের উদ্যোগে ৭৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত
পাইকগাছায় যুবলীগের বনার্ঢ্য যুব র‌্যালী  ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় যুবলীগের বনার্ঢ্য যুব র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
আ’লীগ ক্ষমতায় থাকলে দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটবে.আবু হানিফ আ’লীগ ক্ষমতায় থাকলে দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটবে.আবু হানিফ

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)