শিরোনাম:
পাইকগাছা, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

SW News24
সোমবার ● ৫ জুন ২০২৩
প্রথম পাতা » স্বাস্থ্যকথা » লোহাগড়ায় বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের দৃষ্টিপরীক্ষা
প্রথম পাতা » স্বাস্থ্যকথা » লোহাগড়ায় বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের দৃষ্টিপরীক্ষা
১৯৬ বার পঠিত
সোমবার ● ৫ জুন ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

লোহাগড়ায় বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের দৃষ্টিপরীক্ষা

 


ফরহাদ খান, নড়াইল ; ---নড়াইলের লোহাগড়ায় বিনামূল্যে মাধ্যমিক পর্যায়ের ছাত্রছাত্রীদের দৃষ্টিপরীক্ষা করা হয়েছে। সোমবার (৫ জুন) দুপুরে লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে দৃষ্টিপরীক্ষা করা হয়। সিভিল সার্জন অফিসের আয়োজনে ও ব্র্যাকের সহযোগিতায় কৈশোরবান্ধব প্রকল্পের আওতায় ৬৭ জন শিক্ষার্থীর দৃষ্টিপরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ২০ জনের চোখে সমস্যা পাওয়া যায়।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন-সিভিল সার্জন ডাক্তার সাজেদা বেগম পলিন, লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার এস এম মাসুদ, লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হায়াতুজ্জামান হায়াত, মেডিকেল অফিসার শরিফুল ইসলাম, ডাক্তার জান্নাতুল ফেরদৌস তন্বী, ব্র্যাকের রিজওন্যাল ম্যানেজার মনির হোসেন মোল্যা, ব্র্যাকের জেলা সমন্বয়কারী জাহিদুল ইসলামসহ অনেকে।
সিভিল সার্জন ডাক্তার সাজেদা বেগম পলিন জানান, ‘কৈশোরবান্ধব নড়াইল জেলা’ প্রকল্পের আওতায় বিনামূল্যে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের চোখের দৃষ্টিপরীক্ষা করা হয়েছে।

এর প্রায় দুই মাস আগে লোহাগড়া পাইলট স্কুলে ‘কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্য ও পুষ্টিসেবা কর্ণার’ উদ্বোধন করা হয়। এছাড়া নড়াইল সদরের গুয়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে।  

সিভিল সার্জন বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগের হিসাব মতে ১০ থেকে ১৯ বছর পর্যন্ত সময়টা কৈশোরকাল। এ বয়সে হরমোন পরিবর্তন হয়। এ কারণে শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন হয়ে থাকে। ওজন ও উচ্চতা বাড়ে, হাড়ের গঠন হয়, পুষ্টিকর খাবারের প্রয়োজন হয়। এ সময়ে তাদের ‘গাইড’ করার প্রয়োজন হয়। কৈশোরকালটা সামলে নিতে না পেরে অনেকে বিপথে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। অনেকে ধুমপানে আসক্ত হয়। নীতি-নৈতিকতার অভাব দেখা দেয়। কৈশোরবান্ধব প্রকল্পের মাধ্যমে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কৈশোরকালের স্বাস্থ্য সচেতনতা সম্পর্কে জানতে পারবে। স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে প্রতি সপ্তাহে শিক্ষার্থীদের কৈশোরকালের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করা হবে। চিকিৎসাসেবা প্রদান করা।  

নড়াইলের তিনটি উপজেলায় শিক্ষার্থীবহুল তিনটি করে নয়টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং নড়াইল সরকারি বালক ও বালিকা বিদ্যালয়সহ জেলার মোট ১১টি বিদ্যালয়ে এ কার্যক্রম চালু করা হবে। এছাড়া কয়েকটি কমিউনিটি ক্লিনিকে এ কার্যক্রম চালুর মাধ্যমে ঝরেপড়া শিশু এবং অল্প বয়সে বিয়ের শিকার ছেলেমেয়েরাও এর সুফল পাবে। এ কার্যক্রম আমার নিজস্ব উদ্যোগে করা হয়েছে। এর আগে চাঁদপুর জেলায় এ কার্যক্রম চালু করে এসেছি এবং সফল ভাবে তা সম্পন্ন হয়েছে।





স্বাস্থ্যকথা এর আরও খবর

ডাক্তারদের সেবার মনোভাব নিয়ে চিকিৎসা দিতে হবে    - ভূমি মন্ত্রী ডাক্তারদের সেবার মনোভাব নিয়ে চিকিৎসা দিতে হবে - ভূমি মন্ত্রী
এমপিদের নিজ এলাকায় চিকিৎসা নেয়ার অনুরোধ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এমপিদের নিজ এলাকায় চিকিৎসা নেয়ার অনুরোধ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর
রাসেলস ভাইপার নিয়ে ভয় ও উদ্বেগের যৌক্তিকতা কতটা? রাসেলস ভাইপার নিয়ে ভয় ও উদ্বেগের যৌক্তিকতা কতটা?
খুলনায় আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন খুলনায় আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন
পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ইউ এইচ এফপিও ডা: নিতিশ চন্দ্র গোলদারের প্রশংশনীয় উদ্যোগ পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ইউ এইচ এফপিও ডা: নিতিশ চন্দ্র গোলদারের প্রশংশনীয় উদ্যোগ
মাগুরায়  জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের  উদ্বোধন মাগুরায় জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন
পাইকগাছায় মোবাইল ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টের মাধ্যমে পানি বিতরণ অব্যাহত পাইকগাছায় মোবাইল ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টের মাধ্যমে পানি বিতরণ অব্যাহত
কয়রায় রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের ফ্রি চিকিৎসা দিচ্ছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র কয়রায় রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের ফ্রি চিকিৎসা দিচ্ছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র
নড়াইলে ৯৭ হাজার ৬৮০ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে নড়াইলে ৯৭ হাজার ৬৮০ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে
জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন মাগুরায় লক্ষাধিক শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন মাগুরায় লক্ষাধিক শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)