শিরোনাম:
পাইকগাছা, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯

SW News24
বৃহস্পতিবার ● ১ ডিসেম্বর ২০২২
প্রথম পাতা » আঞ্চলিক » বর্নাঢ্য আয়োজনে মোংলা বন্দরের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
প্রথম পাতা » আঞ্চলিক » বর্নাঢ্য আয়োজনে মোংলা বন্দরের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
৪৮ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ১ ডিসেম্বর ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

বর্নাঢ্য আয়োজনে মোংলা বন্দরের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

বর্নাঢ্য আয়োজনে মোংলা সমুন্দ্র বন্দরের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে  ১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে মোংলা বন্দর গেট থেকে একটি বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা বিভিন্ন সড়ক ঘুরে স্বাধীনতা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়---

পরে শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবাষির্কীর আয়োজনের শুভ উদ্বোধন করেন বন্দর কর্তপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এ্যাডমিরাল মোহাম্মাদ মুসা।

পরে বন্দর সভাকক্ষে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত, গীতা ও বাইবেল পাঠের মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভা শুরু হয়। আলোচনা সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন  বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা। এসময়, বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (হারবার ও মেরিন) কমডোর মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াদুদ তরফদার, সদস্য (প্রকৌশল ও উন্নয়ন) মোঃ ইমতিয়াজ হোসেন, পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ শাহীনুর আলম, হারবার মাস্টার ক্যাপ্টেন মোহাম্মাদ শাহীন মজিদসহ বন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বন্দর ব্যবহারকারীরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে, কৃতিত্ত¡পূর্ন কাজের জন্য বন্দর ব্যবহারকারী, কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিদায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারী ও গনমাধ্যমকর্মীদের সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন বন্দর চেয়ারম্যান।

পরে বন্দরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটেন বন্দর চেয়ারম্যান। কেক কাটা শেষে দেশ, জাতি ও মোংলা বন্দরের অগ্রগতি বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। সব শেষ উপস্থিত অতিথিদের মধ্যান্যভোজের মাধ্যমে বন্দরের ৭২তম  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনুষ্ঠানিকতা শেষ করা হয়।

বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বলেন, এক সময় লোকশানে মোংলা বন্দর এই সরকার ক্ষমতায় আসার পরে বন্দরকে সচল ও লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রুপ দিতে নানা উদ্যোগ গ্রহন করেন। যার ফল শ্রুতিতে মোংলা বন্দর এখন একটি লাভ জনক প্রতিষ্ঠানে রুপ নিয়েছে। জাহাজ আগমনে নতুন নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করছে এই বন্দর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শিতা ও দিক নির্দেশনায় অচিরেই মোংলা বন্দর হবে এদেশের শিপিং হাব।এজন্য মোংলা বন্দরের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বন্দর ব্যবহারকারীদের আরও বেশি আন্তরিকতার সাথে কাজ করার আহবান জানান বন্দরের শীর্ষ এই কর্মকর্তা।

১৯৫০ সালের এ দিনে পশুর নদীর জয়মনির ঘোলে ‘দি সিটি অব লিয়নস’ নামক প্রথম ব্রিটিশ পতাকাবাহী বানিজ্যিক জাহাজ নোঙ্গরের মাধ্যমে মোংলা বন্দরের কার্যক্রম শুরু হয়। সে সময় চালনা এ্যাংকারেজ পোর্ট নামে মোংলা সমুদ্র বন্দরের যাত্রা শুরু হয়েছিল। দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় নানা সমস্যা মোকাবেলা করে পণ্য আমাদানী রফতানি ও রাজস্ব আয়ের মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে আসছে মোংলা সমুদ্র বন্দর।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)