শিরোনাম:
পাইকগাছা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১

SW News24
বুধবার ● ১৫ নভেম্বর ২০২৩
প্রথম পাতা » চিত্রবিচিত্র » নবজাতকের দায়িত্ব নেবে কে !
প্রথম পাতা » চিত্রবিচিত্র » নবজাতকের দায়িত্ব নেবে কে !
১৩৯ বার পঠিত
বুধবার ● ১৫ নভেম্বর ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

নবজাতকের দায়িত্ব নেবে কে !


 

ফরহাদ খান, নড়াইল ; ---নড়াইল জেলা হাসপাতালে পরম মমতায় চারদিনের নবজাতক সন্তানকে আগলে রেখেছেন মমতাময়ী মা। এই মায়ের নেই কোনো নির্দিষ্ট ঠিকানা। পাগলবেশে যেখানে-সেখানে থাকেন তিনি। বুধবার হাসপাতালে গিয়ে এ নবজাতক ও মায়ের দেখা মেলে। হাসপাতালের নার্স ও আয়া জানান, এ নারীরই কোলজুড়ে গত রোববার (১২ নভেম্বর) রাতের যে কোনো সময় নড়াইল সার্কিট হাউজ প্রবেশদ্বারের ছোট্ট কক্ষে তার সন্তানের জন্ম হয়। বিষয়টি সোমবার সকাল ৯টার দিকে টের পান সার্কিট হাউজের কর্মচারী লিটন মিয়া।

তিনি বলেন, সার্কিট হাউজের গেটের কাছে আসার পর হঠাৎ করে শিশুটির দিকে নজর পড়ে। কাছে গিয়ে দেখতে পান পাগলী মায়ের পাশে ফুটফুটে নবজাতক শুয়ে আছে। কথাবার্তার একপর্যায়ে ওই নারী জানান, গত রোববার রাতে তার সন্তানের জন্ম হয়েছে। বিষয়টি জানাজানির পর উৎসুক লোকের ভিড় জমে সার্কিট হাউজ এলাকায়। নবজাতককে দেখতে এসে অনেকেই তার লালন-পালনের দায়িত্ব নিতে চান। তবে সন্তানকে কারোর কাছে দিবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন মমতাময়ী মা।  

এরপর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গত সোমবার রাত ৮টার দিকে মা ও নবজাতককে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ কাজে সহযোগিতা করেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের সদস্যরা। নবজাতক সন্তানকে কাঁচের ঘরে (ওয়ার্মার) রেখে পরিচর্যা করা হচ্ছে। তার মাকেও হাসপাতালে ভর্তি করে সুস্থ করে তোলা হচ্ছে।  

এদিকে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে নবজাতক ও মায়ের সুরক্ষার জন্য মশারি, কম্বল. বিছানা, ওষুধ, পোশাক, ফলসহ খাবার দেয়া হয়েছে। এছাড়া আর্থিক সহযোগিতা করা হয়েছে বলে জানান স্বপ্নের খোঁজে’র সভাপতি মির্জা গালিব সতেজ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন-সাধারণ সম্পাদক শাহ পরাণ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহাগ ফরাজীসহ সদস্যরা।  

মমতাময়ী ওই মা জানান, তার সন্তানকে তিনি ভালো ভাবে মানুষ করতে চান। তার ছেলে সন্তানের নাম ‘জীবন’ রেখেছেন। নবজাতক সন্তানের বাবার কথা জানতে চায়লে এলোমেলো জবাব দেন। একপর্যায়ে বলেন, ওর (নবজাতক) বাবা মারা গেছে। আবার বলেন, ওর বাবার কথা পরে বলব।

স্থানীয় লোকজন জানান, এ নারীকে নড়াইল শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরতে দেখেছেন তারা। কখনো দুর্গাপুর এলাকায় রেললাইনের পাশে, কখনো সার্কিট হাউজ এলাকায়, কখনো পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পাগল অবস্থায় নড়াইলে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)