শিরোনাম:
পাইকগাছা, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

SW News24
রবিবার ● ৯ এপ্রিল ২০২৩
প্রথম পাতা » বিশেষ সংবাদ » দেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ
প্রথম পাতা » বিশেষ সংবাদ » দেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ
১৮৮ বার পঠিত
রবিবার ● ৯ এপ্রিল ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

দেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ

পোস্ট ইনিউমারেশন চেক (পিইসি) এর জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮ কোটি ৪০ লাখ ৭৭ হাজার ২০৩ জন আর নারী ৮ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ১২০ জন। অর্থাৎ পুরুষের তুলনায় নারী বেশি ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৯১৭ জন।

 ৯ এপ্রিল   রবিবার ---দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে বিবিএসের সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ গণনাকৃত ও পিইসির মাধ্যমে সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যার তুলনামূলক চিত্র উপস্থাপন করেন প্রকল্প পরিচালক মো. দিলদার হোসেন।

জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ এর প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশের মোট জনসংখ্যা ছিল ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। পিইসিতে (পোস্ট ইনিউমারেশন চেক) আরও ৪৬ লাখ ৭০ হাজার ২৯৫ জন যোগ হয়ে দেশের সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যা হলো ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। মোট জনসংখ্যার ৬৮ দশমিক ৩৪ শতাংশ পল্লিতে এবং ৩১ দশমিক ৬৬ শতাংশ শহরে বাস করে।

রবিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সভাকক্ষে পিইসি জরিপের আলোকে জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে দিলদার হোসেন বলেন, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) কর্তৃক দেশের প্রথম ডিজিটাল জনশুমারি ও গৃহগণনা ১৫-২১ জুন ২০২২ সময়ে পরিচালনা করা হয়। শুমারি সম্পন্নের মাত্র এক মাসের মধ্যে ২০২২ সালের ২৭ জুলাই প্রাথমিক প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে দেশের গণনাকৃত মোট জনসংখ্যার হিসাব দেওয়া হয়। পরিসংখ্যানিক পদ্ধতি ও আন্তর্জাতিক প্রটোকল অনুযায়ী শুমারি সম্পন্নের পর গণনাকালে সৃষ্ট কভারেজ ও কন্টেন্ট নিরূপণের জন্য বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস) কর্তৃক অক্টোবর ২০২২ সময়ে সম্পূর্ণ স্বাধীন ও স্বতন্ত্রভাবে জনশুমারি ও গৃহগণনা পরবর্তী যাচাই (পিইসি) জরিপ পরিচালনা করা হয়।

বিআইডিএস ২০২২ সালের ১০ থেকে ১৬ অক্টোবর দেশের মোট ৩৭৮টি গণনা এলাকায় ট্যাবলেট ব্যবহার করে ক্যাপি পদ্ধতিতে পিইসি জরিপ পরিচালনা করা হয়। এ কাজে বিআইডিএস ৩৫০ জন গণনাকারী ও ৩৫ জন সুপারভাইজার নিয়োগ করে এবং নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় তাদের প্রশিক্ষণ প্রদান করে।

জরিপে প্রাপ্ত তথ্য প্রক্রিয়ারণ সম্পন্ন করে গত ৬ ফেব্রুয়ারি ২.৭৫ শতাংশ নেট কভারেজ এরর (এনসিই) উল্লেখ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এছাড়াও প্রতিবেদনে পল্লী, শহর, বিভাগ, লিঙ্গ, ধর্ম ও ব্যাসভিত্তিক এনসিই উল্লেখ করা হয়। পরবর্তীতে ওই প্রতিবেদনের আলোকে বিবিএস কর্তৃক শুমারির সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার একটি পূর্ণাঙ্গ হিসাব তৈরি করা হয়েছে।

জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশের গণনাকৃত মোট জনসংখ্যা ছিল ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। পিইসিতে প্রাপ্ত ২.৭৫ শতাংশ এনসিইর প্রেক্ষিতে ৪৬ লাখ ৭০ হাজার ২৯৫ জন যোগ হয়ে দেশের সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যা হলো ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যার ৬৮.৩৪ শতাংশ পল্লীতে এবং ৩১.৬৬ শতাংশ শহরে বাস করে।

বিভাগভিত্তিক জনসংখ্যা পর্যালোচনায় দেখা যায়, সবচেয়ে বড় বিভাগ ঢাকার গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ৪ কোটি ৪২ লাখ ১৫ হাজার ১০৭ জন; সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা হলো ৪ কোটি ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার ৯১৫ জন, যা দেশের মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ২৬.৮৮ শতাংশ। সবচেয়ে কম জনসংখ্যা বরিশাল বিভাগে, মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ৫.৪৯ শতাংশ।

প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশে পুরুষের সংখ্যা ছিল ৮ কোটি ১৭ লাখ ১২ হাজার ৮২৪ জন, নারীর সংখ্যা ৮ কোটি ৩৩ লাখ ৪৭ হাজার ২০৬ জন এবং হিজড়ার সংখ্যা ছিল ১২ হাজার ৬২৯ জন। পিইসি জরিপ অনুসারে পুরুষের এনসিই ২.৮১ শতাংশ, সে হিসাবে সমন্বয়কৃত পুরুষের সংখ্যা ৮ কোটি ৪০ লাখ ৭৭ হাজার ২০৩ জন; নারীর এনসিই ২.৬৯ শতাংশ, সে হিসাবে সমন্বয়কৃত নারীর সংখ্যা ৮ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ১২০ জন।

বিবিএস বলছে, হিজড়া জনসংখ্যা খুব কম হওয়ায় তার এনসিই হিসাব করা সম্ভব হয়নি। এছাড়াও জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এ ১৭ হাজার ৫০৭টি খানার ৮৫ হাজার ৯৫৭ জনের আংশিক তথ্য পাওয়া গেছে, যাদের লিঙ্গসহ অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্য পাওয়া যায়নি। বিষয়টি শুমারির প্রাথমিক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এই জনসংখ্যারও এনসিই হিসাব করা সম্ভব হয়নি বিধায় তাদেরকে ব্যালান্স পপুলেশন হিসেবে গণনাকৃত ও সমন্বয়কৃত উভয় অংশে যোগ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, পরিসংখ্যান ও তথ্যব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন এবং বিআইডিএস মহাপরিচালক ড. বিনায়ক সেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।





বিশেষ সংবাদ এর আরও খবর

পাইকগাছায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সড়কের পাশে মরা গাছ যেন মরণ ফাঁদ ! পাইকগাছায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সড়কের পাশে মরা গাছ যেন মরণ ফাঁদ !
পাইকগাছায় প্রধান শিক্ষককে কান ধরে উঠবস করানো সভাপতি আরশাদকে অব্যাহতি পাইকগাছায় প্রধান শিক্ষককে কান ধরে উঠবস করানো সভাপতি আরশাদকে অব্যাহতি
দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
নকলার ইউএনও’র বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে তথ্য কমিশনের সুপারিশ নকলার ইউএনও’র বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে তথ্য কমিশনের সুপারিশ
দেশের মানুষের গড় আয়ু ৭২.৩ বছর দেশের মানুষের গড় আয়ু ৭২.৩ বছর
সুইডেনের রাজকন্যা কয়রায় আসছেন; ব্যাপক প্রস্তুতি সুইডেনের রাজকন্যা কয়রায় আসছেন; ব্যাপক প্রস্তুতি
চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করল ইসি চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করল ইসি
সকলের প্রচেষ্টায় ভূমিসেবাকে স্মার্টসেবায় রূপান্তর করতে চাই    -ভূমিমন্ত্রী সকলের প্রচেষ্টায় ভূমিসেবাকে স্মার্টসেবায় রূপান্তর করতে চাই -ভূমিমন্ত্রী
যে কোনো উন্নয়ন কাজ সেনাবাহিনী সর্বোচ্চ দক্ষতার সাথে করে থাকে - - সেনাপ্রধান যে কোনো উন্নয়ন কাজ সেনাবাহিনী সর্বোচ্চ দক্ষতার সাথে করে থাকে - - সেনাপ্রধান
পাইকগাছার দেলুটিতে শীতবস্ত্র, খাদ্য, ক্রীড়া-সামগ্রী, স্কুল ব্যাগ এবং কৃষি উপকরণ বিতরণ করেন সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ পাইকগাছার দেলুটিতে শীতবস্ত্র, খাদ্য, ক্রীড়া-সামগ্রী, স্কুল ব্যাগ এবং কৃষি উপকরণ বিতরণ করেন সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)