শিরোনাম:
পাইকগাছা, মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮
SW News24
সোমবার ● ৪ নভেম্বর ২০১৯
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের ১৩৮তম জন্মবার্ষিকী পালিত
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের ১৩৮তম জন্মবার্ষিকী পালিত
৯৯১ বার পঠিত
সোমবার ● ৪ নভেম্বর ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের ১৩৮তম জন্মবার্ষিকী পালিত

---

এস ডব্লিউ নিউজ ॥

পাইকগাছায় সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের ১৩৮তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে।দিবস টি নানা  কর্মসুচির মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে। কর্মসুচির মধ্যে ছিল সাহিত্যিকের  প্রতিকৃতিত্বে পুষ্পমাল্য অর্পন, আলোচনা সভা, সম্মাননা, পুরস্কার ও বই বিতরন, কবিতা আবৃতি ও সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান।---

সকাল ১১টায় নতুন বাজার চত্তরে  কাজী ইমদাদুল হক স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে   আলচনা সভায়  প্রধান অতিথি ছিলেন,খুলনা দৌলতপুর সরকারি  ব্রজলাল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক শংকর কুমার মল্লিক। ---কাজী ইমদাদুল হক স্মৃতি পরিষদের সভাপতি সাংবাদিক প্রকাশ ঘোষ বিধান এর সভাপতিত্বের  বিশেষ অতিথি ছিলেন,গদাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান  গাজী জুনায়েদুর রহমান,পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক দীপংকর সাহা, লেখক ও কবি  সোহার্দ্য সিরাজ, পরিবারের সদস্য কাজী জামানউল্লাহ, সাংবাদিক সুমন্ত চক্রবর্ত্রী।---শিক্ষক শিব শংকর রায়ের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন,প্রেসক্লাব পাইকগাছার সাধারণ সম্পাদক মহানন্দ অধিকারী মিন্টু, গদাইপুর    ইউ পি  প্যানেল চেয়ারম্যন-২ জগন্নাথ দেবনাথ, ব্রততী রায় প্রতিবন্ধি ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা প্রজিৎ কুমার রায়, লেখক ও কবি সুদয় কুমার মন্ডল, প্রদ্যুত ঘোষ,  অশোক কুমার ঘোষ,আ: সবুর আল-আমিন, রিপন আহম্মেদ  নূরআলী মোড়ল, মো: কওছার আলী,এম এ বারিক,শিক্ষক মাছুম বিল্লাহ, শিক্ষার্থী তনুজা খানম, সুমাইয়া সুলতানা ।---আবৃতি করেন নাজিয়া ফেরদৌসী,রাবেয়া আক্তার মলি,মাহমুদুল হাসান নাহিদ।--- অনুষ্ঠানে সমকালীন বাংলা সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখায় শংকর কুমার মল্লিক ও জি এম এমদাদ কে কাজী ইমদাদুল হক সাহিত্য সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। মাধ্যমিক স্কুল পর্যায়ে কাজী ইমদাদুল হকের জীবনী রচনা প্রতিযোগিতায় ১৩ জন ছাত্র ছাত্রী কে  পুরস্কার প্রদান করা হযেছে। অনুষ্ঠানে বক্তারা দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কৃতি ব্যক্তি ও সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের জন্মজয়ন্তী জাতীয়ভাবে পালন ও পাঠ্যপুস্তকে তার জীবনী এবং “আব্দুল্লাহ” উপন্যাস পুনরায় অন্তর্ভূক্ত করার দাবী জানান।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)