শিরোনাম:
পাইকগাছা, বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১

SW News24
রবিবার ● ১ অক্টোবর ২০২৩
প্রথম পাতা » শিক্ষা » খুলনা জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক মিলন সরকার
প্রথম পাতা » শিক্ষা » খুলনা জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক মিলন সরকার
১৮২ বার পঠিত
রবিবার ● ১ অক্টোবর ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

খুলনা জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক মিলন সরকার

খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলাধীন তেলিখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মিলন সরকার জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০২৩ এ উপজেলার গুন্ডি পেরিয়ে খুলনা জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ার সাফল্য অর্জন করেছেন। তিনি তার একান্ত নিষ্ঠা, অধ্যবসায় ও কঠোর পরিশ্রমের ফসল হিসেবে এবার উপজেলা পেরিয়ে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন। পাইকগাছা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা পদক যাচাই-বাছাই কমিটির ফলাফলে তাকে ৫ সেপ্টেম্বর উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক নির্বাচন এবং জেলা প্রাথমিক শিক্ষা পদক যাচাই-বাছাই কমিটির ফলাফলে তাকে ২১ সেপ্টেম্বর জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক মনোনীত করেন। শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক মনোনীত হওয়ায় পাইকগাছা উপজেলার বিভিন্ন মহলের পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানানো এবং সেই সাথে বিভাগীয় পর্যায়ে সফলতার জন্য দোয়া কামনা করা হয়। জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ার অনুভূতি ব্যক্ত করে মিলন সরকার বলেন, এ সাফল্য আমার একার না। এ সাফল্য আমার পরিবারের। এ সফলতা আমার সকল শিক্ষাগুরুর, এ সফলতা তেলিখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তার বিদ্যালয়ের সকলের প্রতি, পাইকগাছা প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার ও উপজেলার নিয়োগ কমিটির প্রতি এবং জেলা প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার ও পরীক্ষা যাচাই-বাছাই কমিটি সহ শুভাকাঙখীদের প্রতি। তিনি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন, অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হাফিজুল ইসলাম সহ বিদ্যালয় কমিটির সদস্যদের। যাদের অনুপ্রেরণায় তার এই অর্জন আগামীতে সকলের সহযোগিতায় তিনি স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের একজন সহযোদ্ধা হিসেবে শিক্ষার্থীদের স্মার্ট আধুনিক জ্ঞান সম্পন্ন আলোকিত মানুষ গড়ে তোলার অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সকলের সহযোগিতা ও আশীর্বাদ কামনা করেছেন। উল্লেখ্য, মিলন সরকার পাইকগাছা উপজেলার দেলুটি গ্রামের দরিদ্র ঘরে ১৯৮৩ সালের ৬ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। পিতা বিনয় কৃষ্ণ সরকার একজন কৃষক ও মাতা কবিতা রানি সরকার গৃহিণী। দরিদ্রের কষাঘাতে জর্জরিত হয়েও পিতা জনখেটে মিলন সহ আর দুই ভাইঢবোনকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করেছেন। মিলন সরকার সকল পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে প্রথম বিভাগ পেয়ে দারুণমল্লিক ডি.এইচ.কে. মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, বটিয়াঘাটা কলেজ থেকে এইচএসসি, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি (অনার্স) এবং মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০২২ সালে ইংরেজি বিষয়ের মাস্টার ট্রেইনারে প্রশিক্ষণ নেন। তিনি আরও বলেন, এ অর্জন আমি সকল শিক্ষকদের মধ্যে উৎসর্গ করলাম এবং নিষ্ঠা ও সততার সাথে আমার দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করব বলে জানান।---





শিক্ষা এর আরও খবর

ফসিয়ার রহমান মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা ফসিয়ার রহমান মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা
নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে নড়াইলের গুয়াখোলায় অভিভাবক সমাবেশ নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে নড়াইলের গুয়াখোলায় অভিভাবক সমাবেশ
নড়াইলে মেডিকেল প্রকৌশল ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা নড়াইলে মেডিকেল প্রকৌশল ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা
খুলনায় বইপড়া উৎসব কর্মসূচিতে মহানগরের ৪৯টি স্কুলের তিন হাজার শিক্ষার্থীকে পুরস্কার প্রদান খুলনায় বইপড়া উৎসব কর্মসূচিতে মহানগরের ৪৯টি স্কুলের তিন হাজার শিক্ষার্থীকে পুরস্কার প্রদান
পাইকগাছা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এণ্ড কলেজে শতভাগ পাস; শিক্ষার্থীদের উল্লাস পাইকগাছা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এণ্ড কলেজে শতভাগ পাস; শিক্ষার্থীদের উল্লাস
বিসিএস জেনারেল এডুকেশন অ্যাসোসিয়েশনের ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বিসিএস জেনারেল এডুকেশন অ্যাসোসিয়েশনের ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
পাইকগাছায় বগুড়ারচক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় বগুড়ারচক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত
শিক্ষা হতে হবে আদর্শভিত্তিক       -ভূমিমন্ত্রী শিক্ষা হতে হবে আদর্শভিত্তিক -ভূমিমন্ত্রী
পাইকগাছায় স্কুল পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচনে ভোটার তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ ; নির্বাচন স্থগিত পাইকগাছায় স্কুল পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচনে ভোটার তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ ; নির্বাচন স্থগিত
পাইকগাছায় প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষকদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ পাইকগাছায় প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষকদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)