শিরোনাম:
পাইকগাছা, মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮
SW News24
শনিবার ● ১২ জুন ২০২১
প্রথম পাতা » রাজনীতি » কয়রায় ত্রাণ বিতরণকালে নজরুল ইসলাম মঞ্জু সরকার টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে ব্যর্থ হয়েছে
প্রথম পাতা » রাজনীতি » কয়রায় ত্রাণ বিতরণকালে নজরুল ইসলাম মঞ্জু সরকার টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে ব্যর্থ হয়েছে
৮০ বার পঠিত
শনিবার ● ১২ জুন ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কয়রায় ত্রাণ বিতরণকালে নজরুল ইসলাম মঞ্জু সরকার টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে ব্যর্থ হয়েছে


রামপ্রসাদ সরদার, কয়রা, খুলনাঃ
 
 উপকূলীয় এলাকার মানুষের বসবাসের জন্য টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। সে কারণে প্রাকৃতিক দূর্যোগ আইলা, সিডর, বুলবুল, আম্পান ও ইয়াসের জলোচ্ছাসে বার বার বেড়িবাঁধ ভেঙে এখানকার লাখ লাখ মানুষ সহায় সম্বল হারিয়ে পথে বসেছে। 
অনেক মানুষ এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে গিয়ে উদ্বাস্তু জীবন যাপন করছে। অথচ সরকারের সেদিকে কোন খেয়াল নেই। বেড়িবাঁধ নির্মাণে টাকা বরাদ্দ হলেও  আজো উপকূলীয় এলাকায় টেকসই বাঁধ হয়নি। ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত হওয়া খুলনার কয়রা উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত ৫০০ পরিবারের মাঝে ১২ জুন বেলা ১১ টায় স্থানীয় কালনা আমিনীয়া ফাজিল মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দেওয়া ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর কমিটির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু এ সব কথা বলেন। 
উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এ্যাডঃ মোমরেজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন, খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাডঃ শফিকুল আলম মনা। অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কুদরতে আমীর এজাজ খান, মহানগর বিএনপি উপদেষ্টা ও ত্রাণ কমিটির সদস্য সচিব সেকেন্দার জাফরুল্লাহ খান সাচ্চু, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও ত্রাণ কমিটির সদস্য সচিব মোল্লা খায়রুল ইসলাম। --- এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, যুগ্ম সম্পাদক শেখ আবু হোসেন বাবু, এ্যাডঃ বজলুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মহানগর বিএনপি নেতা মেহেদি হাসান দিপু, মহিবুজ্জামান কচি, শেখ তরিকুল ইসলাম তরু, সিরাজুল হক নান্নু, আছাদুজ্জামান মুরাদ, ইউসুফ হারুন মজনু, হাসানুর রশিদ মিরাজ, জামিলুর রহমান, জেলা বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান টুকু, এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম, হাফেজ আবুল বাশার, জাফরী নেওয়াজ চন্দন, শামসুল বারিক পান্না, রাহাত আলী খান, তানভীরুল আযম রুম্মান, শেখ হেমায়েত হোসেন, এনামুল হক সজল, হারুন গাজী, ইঞ্জিনিয়ার জাহিদুর রহমান শোভন, জেলা মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শাহানাজ ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক রেহানা ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মিসেস মনি,  যুবদল নেতা চৌধুরী নাজমুল হুদা সাগর, রফিুকল ইসলাম, মহানগর ছাত্রদল নেতা শরিফুল ইসলাম বাবু, শামীম আশরাফ, জেলা ছাত্রদলের ইসরাইল হোসেন বাবু, বায়েজিদ শেখ, কয়রা উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক এমএ হাসান, মনিরুজ্জামান বেল্টু, আবু সাঈদ বিশ্বাস, কোহিনুর ইসলাম, সদস্য আব্দুর রহিম সানা, আব্দুস সামাদ, শহীদুল্যাহ শাহীন, গাজী সিরাজুল ইসলাম, শেখ সালাহউদ্দিন লিটন, যুবদল নেতা মেহেদি হাসান মিলন, আকবার হোসেন, বিল্লাল হোসেন, তরিকুল ইসলাম, বিল্লাল হোসেন, সেচ্ছাসেবক দলের নেতা নুরুল ইসলাম খোকা, হেলাল হোসেন, ছাত্রদলের মিজানুর রহমান, আলমগীর হোসেন, লিটন, আছাফুর, ডাবলু, মনিরুল ইসলাম নাহিদ, আকতার প্রমুখ।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)